মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
হাইমচরে ২ টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১০ জন, সদস্য পদে ৬৫ ও সংরক্ষিত নারী আসনে ১৭ জনের সকল ক্ষেত্রে কার্যকর জবাবদিহিতা ও স্থানীয় সরকার ইএলজি প্রকল্পের গণশুনানী। হাইমচরে ইএলজি প্রকল্পের আওতায় শিক্ষার্থীদের সাথে উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের সংলাপ। হাইমচরে নারী নির্যাতন বিরোধী সভা প্রতিবন্ধীদের জীবনমান উন্নয়নে সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস আজ সেনাবাহিনী সর্বোচ্চ নিষ্ঠা-আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করছে দেশসেবায় সেনাবাহিনীর গৌরবময় ইতিহাস রয়েছে: রাষ্ট্রপতি বিশ্বের ১৮ দেশে পালিত হবে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী দিবস ইউপি নির্বাচন: ২৩ ডিসেম্বরের ভোট হবে ২৬ ডিসেম্বর

ইউপিতে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে গেলে তাৎক্ষণিক বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলমান ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে কাজ করলে তাদের তাৎক্ষণিকভাবে বহিষ্কারের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, চারদিকে নির্বাচন চলছে। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের অনেক কর্মী বিদ্রোহী প্রার্থীর সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। এসব বিদ্রোহী প্রার্থীর বিরুদ্ধে দল অ্যাকশনে যাচ্ছে।

শনিবার (৬ নভেম্বর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন। এদিন শহরের ২নং রেলগেট এলাকার আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এ সভার আয়োজন করা হয়।

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী বলেন, এই নির্বাচনে অনেক ভুলভ্রান্তি আছে। আমাদের আওয়ামী লীগের অনেক কর্মী বিদ্রোহী প্রার্থীর সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। এতে আওয়ামী লীগের ক্ষতি হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে নির্দেশ এসেছে যারা দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে কাজ করবেন তাদের তাৎক্ষণিকভাবে বহিষ্কার করতে হবে।

তিনি বলেন, জেলার নেতারা এই নির্দেশনা যদি বাস্তবায়ন না করেন তাহলে আওয়ামী লীগ দিন দিন হালকা হয়ে যাবে। কারণ বিদ্রোহী প্রার্থীরা যারা দাঁড়াবেন তারা টাকা নিয়ে দাঁড়াবেন। তাদের পক্ষে আমাদের কর্মীরা চলে যাবে। পার্টি নিঃশেষ হয়ে যাবে। সুতরাং যারা বিদ্রোহীদের পক্ষে থাকবে তাদের বহিষ্কার করতে হবে।

পাটমন্ত্রী বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হবে। যদি সিদ্ধান্ত না নিতে পারে তাহলে জেলা আওয়ামী লীগের মূল্যায়ন থাকবে না। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদককে বলেছি আপনারা যদি সিদ্ধান্ত না নিতে পারেন তাহলে আমাদের আর ডাকবেন না। সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগেন। সুতরাং যে কোনো সিদ্ধান্ত সঙ্গে সঙ্গে নিতে হবে। তাহলে আমরা আপনাদের সঙ্গে থাকবো। তারা বলেছেন আমরা অ্যাকশনে যাবো।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাইয়ের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগের জেলা কার্যকরী কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমাদের অনুসরণ করুন

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব